Romantic Valobasar Golpo – পুলিশের সাথে প্রেম-১

Romantic Valobasar Golpo – পুলিশের সাথে প্রেম-১: পুলিশ অফিসার টা এদিকে তাকিয়ে মিষ্টি একটা হাসি দিয়ে সানগ্লাস পরছে, আর উনি এদিকে তাকিয়ে থাকার সুবাদে তখনি আমি তাকে ভেংচি মেরে দেই, তখন আনু(আনিয়া) পিছনে ফিরে হা হা করে হেসে দিয়ে বলে, ইশ্ক(ইশকা) তুই ওনা কে কি এমন করেছিস? যে সে এখন বোএিশ টা দাঁত বের করে হাসছে?

হায় আল্লাহ আমি তো ব্যাটা কে ভেংচি মেরেছি, উনি আবার দেখে ফেলেছে নাকি? এখন কি হবে? কি আর করবে তোকে তুলে নিয়ে গিয়ে ভেংচি মারার ফল আদায় করবে, আনু(আনিয়া) মার না খেতে চাই লে চুপ থাক কেমন? ওক্কে বেবি, বায় দ্যা ওয়ে আঙ্কল আন্টি আসবে কবে?

কালকে আসবে ইশ্ক, তাহলে তুই আমার কাছে থাকবি কেমন? ইয়েস মাই ইশ্ক মোহাব্বত, হয়েছে এখন থাম নে বাসায় এসে গেছি, বাসায় যেয়ে ফ্রেশ হতেই মাম্মা আমাদের খাবার খাইয়ে দেয়, পরেরদিন সকালে হঠাৎ আনুর(আনিয়া) ফোন বেজে ওঠে, ফোন রিসিভা করে কথা বলে আমাকে জানায় যে, আব্বু আম্মু এসে পরেছে তাই চাবি নিয়ে বাসায় যেতে বলেছে,

আচ্ছা ঠিক আছে আমি তো রেডি আছি তুই রেডি হয়ে নে দেন আমরা বাসায় গিয়ে চাবি দিয়ে আসবো কেমন? হুমমম, আনু রেডি হতেই আমরা চাবি নিয়ে ওদের বাসায় চলে যাই, অবশ্য আনুর বেশি দূরে নয় আমার বাসর সামনেই দুটো ফ্লাট আছে একটা হলো আনু দের আর একটা যেন কাদের আয় ডোন্ট নো

আঙ্কল আন্টি কে চাবি দিয়ে ফ্লাটের বাহিরে আসতেই দোতালা থেকে আঙ্কল বলে মা তোরা দারা আমি এখনি আসছি, আঙ্কল নিচে আসতেই আমাকে চকলেটের বক্স দিয়ে বলে, আম্মু এটা তোর, থ্যাংকইউ আঙ্কল, ওয়েলকাম মা, তা আমার এই মেয়ে টা তোকে জ্বালায়নি তো?

Valobasar Golpo

valobasar golpo
Photo by Silvio Barbosa on Pexels.com

জ্বালায় নি মানে? তুমি জানো ও কি করেছে আঙ্কল? কি করেছে মা? ইশ্ক তুই যদি তোর মুখ খোলো, আমি তোর মুখে টেপ মেরে দিবো হুমমম, আমি ও টেপ খুলে নিবো হা হা হা, আনু তুই থাম আর মা আমাকে বলো কি করেছে ও?

কাল রাতে ঘুমের মধ্যে ও আমাকে ওর উডবি জামাই মনে করে শক্ত করে জড়িয়ে ধরে বলে, বেবি গিভ মি এ কিসসসস, উম্মাহহহহহ উম্মাহহহহহহ, এটা কি ঠিক তুমি বলো?

মেয়ে হয়ে আরেক টা মেয়ের ইজ্জত নিয়ে টানাটানি করছে? তোমার মেয়ের টানাটানি সইতে না পেরে আমি ওকে বেড থেকে ফেলে দিয়েছি, তখনি মাম্মা পাপা এসে জিজ্ঞেস করে, কিরে মা তোরা এখনো ঘুমা ও নি? তাই তো বলছি আঙ্কল ওকে ধরে বিয়ে দিয়ে দাও ভালোই হবে, আমার কথা শুনে আঙ্কল হাসতে হাসতে বাসায় চলে যায়, আর আনু মুখ টা বাংলার পাঁচের মতো করে আমাকে তাড়া করতে শুরু করে

আনুর তাড়া খেয়ে দৌড়া দৌড়ী করতে করতে ওদের পাশের ফ্লাটের ছাদের দিকে নজর চলে যায়, নজর যেতেই দেখি সেই পুলিশ অফিসার টা আমাদের দেখে দুপাটি দাঁত বের করে হাসছে, তার হাসার শ্রী দেখে মনে হলো সে আমার কথা গুনেই হাসছে, হাসছে হাসুক তো আমার কি?

আর তখনি আনু এসে আমাকে পেছন থেকে জড়িয়ে ধরে বলে, শয়তানি কোনো কথা তোর মুখে আটকায় না তাই না আটকাবে কেন? তুই আমার মানইজ্জত নিয়ে টানাটানি করেছিস, বেষ্ট ফ্রেন্ড বলে ছেড়ে দিচ্ছি, নয় তো পুলিশ কেস করে দিতাম হুমমম, আমার কথা শুনে আনু হা হা করে হেসে দিয়ে আমার কানে ফিসফিসিয়ে বলে, তুই বুঝি তার কাছে মানে সেই পুলিশ টার কাছে পুলিশ কেস করতি?

কি যে বলো ওনার সামনে গেলে তো লজ্জায় মরে যেতাম, হা হা হা, চল, কোথায়? ফুসকা খেতে ফুসকা শপে, দেন আমরা দুই বেষ্টু বাসার সামনের ফুসকা শপে ফুসকা খেতে যাই, ফুসকা খেয়ে দুষ্টুমি শুরু করতেই আমি স্লিপ করে রাস্তায় পরে যাই, হায় আমার কোমর, কেউ আমাকে ধরো প্লিজজজজ

আর তখনি পুলিশ টার দিকে নজর যেতেই দেখি, ব্যাটা পুলিশ আমার কান্ড দেখে আমারি সামনে দাড়িয়ে হাসতে হাসতে লুটোপুটি খাচ্ছে , ! পচা পুলিশ আমি তোমার দাঁত খুলে নিবো, কপালে বৌ নাই তোর, আর তখনি মাম্মা ও আনু আমাকে তুলে নিয়ে বাসায় চলে যায়, ! মা ব্যাথা করছে খুব?

কোই না তো ব্যথা তো পাইনি মাম্মা, ! তোমার পাপা শুনলে তো খুবি রেগে যাবেন, ! পাপা তো জানবেই না সো রাগবে কি করে মাম্মা, ! তোমার পাপার আলাদা করে কিছু জানালাগে না সে তার মেয়ে কে দেখলেই বুঝে যায়, ! তাই মাম্মা? ! হুমমমমমম, আজ রাতে আমরা বাহিরে ডিনার করবো কেমন?

সিরিয়াসলি মাম্মা? ! হ্যা মা তোমার পাপা বলেছেন, তোমাকে শপিং করাবে ও ডিনারে নিয়ে যাবেন, ! রাতে আমি মাম্মা পাপার সাথে শপিং করে ডিনারে চলে যাই, ডিনার শেষে উঠে দাঁড়াতেই দেখি সেই পুলিশ অফিসার টা ও আমাদের সামনের টেবিলে বসে চিকেন ফ্রাই খাচ্ছে, তখনি আমি পাপা কে বলি পাপা আমার পেট ভরেনি আমি চিকেন ফ্রাই খাবো, আমার কথা শুনে পাপা চিকেন ফ্রাই ওয়াডার করিয়ে, আমাকে বলে, ! আমার মা তো খেতেই চায় না আজ কেকী মায়ের পেটে হাতি ঢুকেছে যে এতো খিদে পাচ্ছে?

Ekta Valobasar Golpo

valobasar golpo
Photo by Leeloo Thefirst on Pexels.com

খিদে পেলে কি খাবোনা? তুমি না পচা পাপা, ! আমি কি সেটা বলেছি মা? শুধু শুধু রাগ করে দুষ্টু মা জানি কোথাকার, ! ওই তো আমি জানি আমি তোমার মাম্মা, আর তখনি মাম্মা পাপা হা হা করে হেসে দেয়, তখনি সামনে তাকিয়ে দেখি সেই পুলিশ অফিসার আমাকে দেখে হাসছে,!

ডেফিনিটলি শয়তান টা সকালের স্লিপ করে ওরে যাওয়ার কথা মনে করে হাসছে, পাজি যেন কোথাকার, ! আর তখনি খেয়াল করে দেখি একটা দুই বা আড়াই বছরের বাবু ও একজন মহিলা সেই পুলিশ অফিসারের সাথে বসে, ! ওমা গো আমি কি এই বিবাহিত লোক ও একবাচ্চার বাপের ক্রাশে পরলাম?

কি হলো মা খাচ্ছিস না যে, ! খিদে নেই পাপা পেট ভরে গেছে আমার, ! তা বললে কিরে হবে? কিছুই তো খাওনি তুমি মা? ! ইচ্ছে করছেনা পাপা আমি সরি, আমি প্লিজ রেস্টুরেন্টের বাহিরে গিয়ে দারাই আমার এখানে একদম ভালো লাগছেনা, ! আচ্ছা মা যাও তবে সাবধানে কেমন?

ওকে পাপা, ! বাহিরে গিয়ে দাঁড়াতেই দেখি সেই পুলিশ অফিসার ওই বাবু টাকে কোলে করে বাবুর আম্মু কে সাথে নিয়ে রেস্টুরেন্ট থেকে বেড়িয়ে আসছে, ! অবশ্য তাতে আমার আমার কি? আমি আর কখনওই ক্রাশ মানে বাঁশ খাবোনা এটাই আমার প্রথম ও শেষ ক্রাশ আই মিন বাঁশ, তাই আমি তাদের দেখে ও না দেখার ভান করে আমাদের গাড়ির সামনে দাঁড়িয়ে থাকি, আর ওমনি হঠাৎ করে আমার খোপা খুলে গিয়ে চুল গুলো বেড়িয়ে আসে, তাই আমি গাড়ির আয়নার সামনে দাড়িয়ে চুল ঠিক করি,!

চুল ঠিক করে ওপাশ ফিরে তাকাতেই দেখি সেই পুলিশ অফিসার আমাকে দেখে হাসছে, ! উফফ, কি সুন্দর সুইট সিম্পল স্মাইল তার, তবে এখন এই ক্রাশের কথা ভাবলে সে আমার ত্রাসে পরিণত হবে, তাই তখনি তাকে মাথা থেকে ঝেড়ে ফেলে মাম্মা কে খালামনির বাসায় ড্রপ করে আমি ও পাপা বাসায় চলে যাই,!

বাসায় যেতেই আমি আমার রুমে গিয়ে ঘুমিয়ে পরি, মাঝরাতে ঘুম ভেঙে যেতেই ভয় পেয়ে যাই আমি, কারন আমি একাএকা ঘুমোতে পারিনা, আর তাই আমার মাম্মা আমার কাছে ঘুমোয় এখন কি হবে আমি একাএকা ঘুমোবো কিরে? তাই তখনি আমার বালিশ ও কাঁথা নিয়ে পা টিপেটিপে পাপার রুমে চলে যাই, আর আস্তে করে পাপার অপজিটে গিয়ে শুয়ে পরি, তখনি পাপা হঠাৎ করে পাপা বলে উঠে,!

কি হলো মা এতো দূরে শুয়েছ কেন? পরে যাবে তো? আমার কাছে এসে ঘুমো, ! তারপর আমি আস্তে করে পাপার কাছে এগিয়ে শুয়ে পরি আর পাপা আমার মাথায় হাত বুলিয়ে দিয়ে বলে, ! আমি তো আছি আর কোনো ভয় নেই মা, ! পাপা তুমি জানলে কি করে?

আমার মা আর আমি জানবো না? তোমার মাম্মা জানো তোমার চিন্তায় কতবার ফোন করেছে? আমি তোমার কাছে আছি তারপরো সে চিন্তায় মনে যাচ্ছে, আমি তোমার মাথায় হাত বুলিয়ে দিচ্ছি তুমি ঘুমিয়ে পরো মা !

পরেরদিন সকালে ঘুম থেকে উঠে দেখি আমি আমার পাপার বুকে মাথা রেখে শুয়ে আছি আর আমার পাপা তখন মুহাম্মদ জাফর ইকবালের সাইন্সফিকশন মহাকাশে মহাত্রাস পরছেন, তখন চোখ তুলে সামনে তাকাতেই দেখি আমার মাম্মা এক গ্লাস দুধ নিয়ে দাঁড়িয়ে, মাম্মা কে দেখা মাঐ মাম্মা কে গিয়ে জড়িয়ে ধরি তখন পাপা আমাকে বলেন? ! তুমি জানো মা কালকে তুমি ঘুমিয়ে যাওয়ার পরে ও তোমার আম্মু কমছে কম দশবার ফোন করেছে!

মাম্মা তুমি কি পাগল হয়ে গেছ? ! তোমাকে ছাড়া আমার তো পাগল পাগলি লাগে মা? ! পাপা তুমি পুলিশ হেড কোয়াটারে যাবে না?

ভালোবাসার গল্প কাহিনী

valobasar golpo
Photo by vjapratama on Pexels.com

মা তুমি আমাকে শুক্রবারো কাজে পাঠাতে চাও? ! তোমাদেরো শুক্র শনিবার আছে নাকি পাপা? ! হা হা হা নাই, ! তো আমি ও এখন ফ্রেশ হতে যাই, ফ্রেশ হয়ে ওয়াসরুম থেকে বেরোতেই গিটারের শব্দ শুনতে পাই, তাই গিটারিস্ট কে দেখতে টায়ওাল দিয়ে চুল মুছতে মুছতে বারান্দায় চলে যাই, ! সেখানে যেতেই চোখ কপালে আমার, কারন সেই পুলিশ অফিসার টাই তার বারান্দায় ঘুরে ঘুরে গিটার বাজাচ্ছে?

ওহহহ মায় গুডনেসসস, আর তখনি সেই পুলিশ অফিসার টা আমাকে দেখে মিষ্টি হাসি দিয়ে গিটার বাজাতে বাজাতে রেলিং এর কাছে চলে আসে, ও,এম,জি তাহলে আনুর ফ্লাটের পাশের ফ্লাট টা ওনার? দ্যাট মিনর্স মেইন রোডের ওপাশে ওনার বাড়ি এ পাশে আমার বাড়ি?

প্রত্যেকদিন সকালের হাওয়া খেতে এলে আমার এই লোকটার মুখো দর্শন করতে হবে? ! ওমা গো কেউ আমাকে ধরো? ক্রাশ নামের বাঁশ তো সোজা আমার বাপের বাড়ির সামনে এসে জুটেছে, ! তাই তখনি আমি ওই ব্যাটা পুলিশ কে ভেংচি মেরে পর্দা টেনে দিয়ে রুমে চলে যাই!

রুমে যেতেই আবারো চোরের মতো ব্যাটা পুলিশ কে উকি মেরে দেখতে থাকি, ! তখনি খেয়াল করে দেখি ব্যাটা পুলিশ এদিকে তাকিয়ে হাসতে হাসতে লুটোপুটি খাচ্ছে, ! আশ্চর্য ব্যাটা এতো হাসছে কেন? তখনি খেয়াল করে দেখি, ! যে পর্দার আড়ালে থেকে আমি ওই পুলিশ অফিসার টাকে লুকিয়ে লুকিয়ে দেখছি ওটা এতোই পাতলা এতোই পাতলা যে ব্যাটা পুলিশ আমাকে দেখে হাসতে হাসতে গড়াগড়ি খাচ্ছে!

ইসসসসসসসস, কি হলো এটা? চোরের ওপরে বাটপাড়ি করতে গিয়ে চোর বলে গেলাম, ! তখনি আনু এসে আমাকে টানতে টানতে রাস্তায় নিয়ে যায়, ! রাস্তায় যেতেই কেউ একজন আমাকে বলে ওঠে, ! দেখবে যখন সামনে দাঁড়িয়ে চোখেচোখ রেখে দেখো, এভাবে লুকিয়ে দেখার কি দরকার হুমমম?

তখনি চোখ তুলে সামনে তাকিয়ে দেখি সেই পুলিশ অফিসার, ! ওমা গো আপদ টা এখন আবার সামনে এসে জুটেছে? ধুর বাবা ভাল্লাগেনা কি যে করি? ! কি হলো চুপ করে আছো কেন? ! আপনার চেহারা দেখছি আঙ্কল, ! কি? আমাকে কেন অ্যাংগল থেকে আঙ্কল বলে মনে হয় হুমমম?

কি যে যুগ আসল আঙ্কল কে আঙ্কল বললে ও দোষ হয়, ! এই মেয়ে কি বললে তুমি আমাকে? ! বয়রা জানি কোথাকার গিয়ে কানের ডক্টর দেখান দেন আমি বলবো যে আঙ্কল কে আঙ্কল বলেছি, ! তখনি পুলিশ টা আমার মুখোমুখি হয়ে ঠোঁটের কাছে এসে বলে, ! তোমার আমাকে আঙ্কল বলে মনে হয় তাই তো?

দেখো তোমারো এমন আঙ্কলের মতোই বর জুটবে হুমমমম, ! শকুনের অভিশাপে গরু মরেনা বুঝলেন? ! বলা তো যায় না মরতে ও পারে তাই না? চলবে?….

আরো পড়ুনঃ (দীর্ঘ সময় মিলন করার ইসলামিক পদ্ধতি ও দোয়া)

0 thoughts on “Romantic Valobasar Golpo – পুলিশের সাথে প্রেম-১”

Leave a Comment