Ayatul Kursi Bangla – আয়াতুল কুরসী বাংলা উচ্চারণ অর্থ এবং ফজিলত

Ayatul Kursi Bangla – আয়াতুল কুরসী বাংলা উচ্চারণ অর্থ এবং ফজিলত সহ বিস্তারিত আলোচনা করেছি এই পোস্টে আসা করি এই পোস্টি আপনার অনেক উপকারে আসবে ইনশাআল্লাহ।

আয়াতুল কুরসী – Ayatul Kursi in Arabic

اللّٰهُ لَاۤ اِلٰهَ اِلَّا هُوَ الْحَـىُّ الْقَيُّوْمُ  لَا تَاْخُذُهٗ سِنَةٌ وَّلَا نَوْمٌ‌ؕ لَهٗ مَا فِى السَّمٰوٰتِ وَمَا فِى الْاَرْضِ‌ؕ مَنْ ذَا الَّذِىْ يَشْفَعُ عِنْدَهٗۤ اِلَّا بِاِذْنِهٖ‌ؕ يَعْلَمُ مَا بَيْنَ اَيْدِيْهِمْ وَمَا خَلْفَهُمْ‌ۚ وَلَا يُحِيْطُوْنَ بِشَىْءٍ مِّنْ عِلْمِهٖۤ اِلَّا بِمَا شَآءَ ۚ وَسِعَ كُرْسِيُّهُ السَّمٰوٰتِ وَالْاَرْضَ‌‌ۚ وَلَا يَـــُٔوْدُهٗ حِفْظُهُمَا ‌ۚ وَ هُوَ الْعَلِىُّ الْعَظِيْمُ

ayatul kursi bangla

আয়াতুল কুরসী বাংলা উচ্চারণ

বাংলা উচ্চারণ: আল্লা-হু লা ইলা-হা ইল্লা হুওয়াল হাইয়্যুল ক্বাইয়্যুম। লা তা’খুযুহু সিনাতুঁ ওয়ালা নাঊম। লাহূ মা ফিস্ সামা-ওয়াতি ওয়ামা ফিল আরদ্বি। মান যাল্লাযী ইয়াশফাউ’ ই’ন্দাহূ ইল্লা বিইজনিহি। ইয়া’লামু মা বাইনা আইদিহিম ওয়ামা খালফাহুম, ওয়ালা ইউহিতূনা বিশাইয়্যিম্ মিন ‘ইলমিহি ইল্লা বিমা শা-আ’ ওয়াসিআ’ কুরসিইয়্যুহুস্ সামা-ওয়া-তি ওয়াল আরদ্বি, ওয়ালা ইয়াউ’দুহূ হিফযুহুমা ওয়া হুওয়াল ‘আলিইয়্যুল আ’জিম। (সূরা আল-বাক্বারা আয়াত-২৫৫)।

আয়াতুল কুরসী বাংলা উচ্চারণ ছবি

আয়াতুল কুরসী বাংলা অনুবাদ

আল্লাহ ছাড়া অন্য কোন উপাস্য নেই, তিনি জীবিত, সবকিছুর ধারক। তাঁকে তন্দ্রাও স্পর্শ করতে পারে না এবং নিদ্রাও নয়। আসমান ও যমীনে যা কিছু রয়েছে, সবই তাঁর। কে আছ এমন, যে সুপারিশ করবে তাঁর কাছে তাঁর অনুমতি ছাড়া?

দৃষ্টির সামনে কিংবা পিছনে যা কিছু রয়েছে সে সবই তিনি জানেন। তাঁর জ্ঞানসীমা থেকে তারা কোন কিছুকেই পরিবেষ্টিত করতে পারে না, কিন্তু যতটুকু তিনি ইচ্ছা করেন।

তাঁর সিংহাসন সমস্ত আসমান ও যমীনকে পরিবেষ্টিত করে আছে। আর সেগুলোকে ধারণ করা তাঁর পক্ষে কঠিন নয়। তিনিই সর্বোচ্চ এবং সর্বাপেক্ষা মহান।

আয়াতুল কুরসীর ফজিলত

আয়াতুল কুরসীর ফজিলত অনেকগুলো রয়েছে যা কুরআনে ও হাদিসে উল্লেখিত। কিছু গুরুত্বপূর্ণ ফজিলত সম্পর্কে নিম্নলিখিত তথ্যগুলো জানা যাক:

১. প্রিয় নবী হযরত মুহাম্মদ (সঃ) বলেছেন: যে ব্যক্তি প্রত্যেক ফরজ সালাতের পর আয়াতুল কুরসি পাঠ করবে, তার মৃত্যুর সময় সহজভাবে জান কবজ করা হবে।

২. হাদিসে বলা আছে, যে ব্যক্তি ঘুমানোর আগে আয়াতুল কুরসি পাঠ করবে, আল্লাহ তার মাথার কাছে একজন ফেরেশতা নিযুক্ত করে দিবেন এবং সে ফেরেশতা সারা রাত তাকে পাহারা দিবে এবং দুষ্ট জীন ও শয়তানের অনিষ্ট থেকে রক্ষা করবে।

৩. রসূলুল্লাহ (সঃ) বলেছেন, যে ব্যক্তি আয়াতুল কুরসি পাঠ করে তার ধন-সম্পতি ফুঁকে দেয় তাহলে তার ওই সম্পদ কোনো চোরে নিতে পারবে না।

শেষ কথাঃ

সূরা আল-বাকারা, আয়াত ২৫৫ বা আয়াতুল কুরসী একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ আয়াত, যা অনেক ফজিলত এবং মানবিক উপকারিতা দিয়ে থাকে। ইসলামিক ধর্মে এই আয়াতটির বিশেষ গুরুত্ব রয়েছে এবং এটি প্রতিনিয়তই পড়া ও মানসিকভাবে স্মরণ করা উচিত।

আয়াতুল কুরসি বাংলা (ayatul kursi bangla) এই পোস্ট সম্পর্কে কোনো মতামত থাকলে অবসসই কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করে জানাবেন। আজ এখানেই শেষ করছি সবাই ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন এবং আমাদের সাথেই থাকবেন।

Leave a Comment